চিংড়ি চাষের ক্ষতিকারক দিকগুলোও বিবেচনায় নিতে হবে

আজকের বিশ্বে পরিবেশ বিনাশী নানা কর্মকাণ্ড চলছে। এ জন্য আমরা উন্নত দেশগুলোকে দায়ী করি। সত্যিকার অর্থে, তারাই বেশির ভাগ দায়ী। কিন্তু স্থানীয়ভাবে আমাদেরও কিছু দায় আছে। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল বিশ্বের অন্যতম বিপন্ন এলাকায় পরিণত হতে চলেছে। প্রাকৃতিক বিপর্যয় ও ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা বাড়ছে। তাই সিডর, আইলা আমাদের উন্নয়নচিত্রকে নতুন করে ভাবতে শেখাচ্ছে। আমরা যত্রতত্র বেড়িবাঁধ কাটছি। ফসলি জমিতে নোনাজল তুলছি। প্রকৃতির জন্য বিপর্যয় ডেকে আনছি। চিংড়ি চাষ অনেকের গণকর্মসংস্থান কেড়ে নিয়েছে।

আমরা বাগদা চিংড়ি চাষের বিপক্ষে নই। কিন্তু আমাদের চিংড়ি চাষের ক্ষতিকারক দিকগুলোও বিবেচনায় নিতে হবে। পরিবেশকে বিষাক্ত করে, বিপর্যস্ত করে, আমরা শুধু অর্থনৈতিক উন্নয়নের পথে হাঁটতে পারি না। চিংড়ি চাষকে যদি এখনই কঠোর নীতিমালার আওতায় আনা না হয়, তাহলে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের পরিবেশ, প্রকৃতি ও অর্থনীতি আরও বিপর্যস্ত হয়ে পড়বে।

Leave a Reply

Top