কবিতা

সূর্য
নন্দিনী নদী

আজ আমি এক অপ্রিয়ভাষী-
তোমার নয়নে আর নেই সেই আমি,
ভালোবাসার অশ্রুবিন্দু তোমার শুকিয়ে গেছে
আমার তরে,
তাইতো রাই হাজার কেঁদেছে আজ এই বিরহানলে।
ভালোবাসা আজ হাহাকার আমার,
আইসক্রিমের মত গলে ব্যথিত হৃদয়,
আর আগুনের মত আমার ভিতরে
জ্বলজ্বলন্ত লাল রক্তকমল।
মৃত্যুভয় আর পাই না আমি,
আজন্মকাল মরেই বেঁচেছি।
ভালোবাসা হীন তীর্থ আমি,
যে কূলে ভেসে জীবমৃত তোমার আমি।
ভালো আছো,
ভালো থেকো, তোমার জন্য
বারবার লিখবো।
আমার গান তোমার জন্য,
আমার হৃদয় গাঁথা তোমার জন্য
এক একটি পুষ্প।
কাঁটাও ভালোবাসি তোমার দেয়া,
ওটাই যে আমার সবচেয়ে বড় পাওয়া,
এই তো আমার হিয়া,
থাকে অনন্তকাল শতবার করে আশা।
আশায় আশায় বারি ঝরে,
হৃদয়ের বহ্নিশিখা জ্বলে অন্ধকারে,
আমি সেই আধারের চাই ভাতি,
তোমার আলোয় আমার আমি।
তোমার মত অনন্তকাল আমিও জ্বলবো সূর্য,
তাই তো আমার বেঁচে থেকেও মৃত্যু অনিবার্য।

Leave a Reply

Top